আবে জমজম ও বিবি মরিয়মের কাহিনি

ওসমানী উদ্যানের সদর ফটকে যে কামানটি শায়িত অবস্থায় রয়েছে বেশ কিছুকাল আগেও কামানটি গুলিস্তানের সামনে চৌরাস্তায় শায়িত ছিলো। তারও আগে কামানটি ছিলো বুড়িগঙ্গা নদীর পাড় ঘেঁষে। সেটাই এখন সদরঘাটের বর্তমান লঞ্চঘাট। সে যুগে সদরঘাটের এই কামানটির প্রখ্যাতি ছিলো বাংলার ঘরে ঘরে। বহু ধর্মপ্রাণ হিন্দু এই কামানটিকে পবিত্র মনে করে তেল, সিঁদুর দিয়ে নাকি পূজোও করতো। মানতও করতো অনেকে। ছোট ছোট মেয়েরা কামান ঘেরা দেয়ালের পাশের গাছে চড়ে লুকিয়ে লুকিয়ে নাকি কামানটিকে দেখতো। কিংবদন্তি আছে এটি একজোড়া কামানের একটি। অন্যটি বুড়িগঙ্গায় জ্যান্ত অবস্থায় রয়েছে এবং সেটি জলের নীচে চলাফেরাও করে। সেটি নাকি পুরুষ। নাম ‘আবে জমজম’। আর পাড়েরটির নাম ‘বিবি মরিয়ম’। প্রেম বিরহে কামান দুটি নাকি খুব কাতর ছিলো। ‘আবে জমজম’ নাকি মেঘলা রাতের ঘন ঘোর অন্ধকারে বিরহ বেদনায় কাতর হয়ে গুড়ুম গুড়ুম আওয়াজ করে প্রেয়সী ‘বিবি মরিয়ম’কে কাছে পাবার জন্যে কাতরোক্তি করতো। তবে প্রেমিকা ‘বিবি মরিয়ম সে প্রেমের আকুতিতে সাড়া দিতো কিনা তা কেউ বলতে পারে না।

উপাখ্যানটি পড়ে খুব মজা পেলাম।

Anupa Dewanji
অনুপা দেওয়ানজী

Author: অনুপা দেওয়ানজী

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

Related posts

মতামত দিন Leave a comment