এডভোকেট মশিউর রহমান

এডভোকেট মশিউর রহমান


বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহযোগী ও সহচর এডভোকেট মশিউর রহমান ছিলেন স্বাধীনতা পূর্বকালীন সময়ে বৃহত্তর যশোর-খুলনা অঞ্চলে বাঙালি জাতীয়তাবাদী আন্দোলন তথা স্বাধিকার ও স্বাধীনতা আন্দোলনের প্রাণপুরুষ।।
আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অন্যতম কৌসুলি এডভোকেট মশিউর রহমান বৃহত্তর যশোর-খুলনা অঞ্চলে ১৯৭১ সালের মার্চ মাসে বঙ্গবন্ধু ঘোষিত অসহযোগ আন্দোলনের নেতৃত্ব দেন। তিনি ১৯৪৮ সালে যশোর জেলা বোর্ডের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন এবং মুসলিম লীগের রাষ্ট্রভাষা সম্পর্কিত নীতির প্রতিবাদে ১৯৪৮ সালেই জেলা বোর্ডের চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগ করেন। তিনি ১৯৪৮ থেকে ১৯৫২ সাল পর্যন্ত বৃহত্তর যশোর-খুলনা অঞ্চলে ভাষা আন্দোলনে নেতৃত্ব দেন এবং গ্রেপ্তার হন।
১৯৫৪ সালে তিনি যুক্তফ্রন্টের প্রার্থী হিসেবে যশোর থেকে পূর্ব বাংলা আইন পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হন। এডভোকেট মশিউর রহমান , ১৯৫৬ সালে আতাউর রহমান খানের নেতৃত্বাধীন মন্ত্রিসভায় প্রচার, সংসদ বিষয়ক এবং রাজস্ব ও স্থানীয় স্বায়ত্তশাসন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব লাভ করেন। ১৯৫৮ সালে সামরিক আইন জারি হলে তিনি পুনরায় গ্রেফতার হন। ১৯৭০ সালের নির্বাচনে এডভোকেট মশিউর রহমান আওয়ামী লীগের মনোনয়নে যশোর-৩ নির্বাচনী এলাকা থেকে জাতীয় পরিষদ সদস্য নির্বাচিত হন।
স্বাধীনতার প্রথম প্রহরে পাক হানাদার বাহিনী এডভোকেট মশিউর রহমানকে গ্রেফতার করে যশোর সেনানিবাসে নিয়ে যায় এবং সেখানে নির্মম ও নিষ্ঠুর নির্যাতনের মাধ্যমে ১৯৭১ সালের ২৫ এপ্রিল পাকিস্তানি সেনা কর্মকর্তারা তাঁকে হত্যা করে।
যশোর জেলা স্কুল, কলকাতা ইসলামিয়া কলেজ ও কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করা দেশপ্রেমিক এই বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদের স্মৃতির উদ্দেশ্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭২ সালের ২৬ ডিসেম্বর যশোর পৌর পার্কে একটি স্মৃতিফলক উন্মোচন করেন।
বিনম্র শ্রদ্ধা।


(সংগৃহীত)

Author: রক্তবীজ ডেস্ক

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

Related posts

মতামত দিন Leave a comment