এসো হে বৈশাখ

এসো হে বৈশাখ আফরোজা পারভীন

চৈত্রদিনের শেষে তোমার আগমনী

বার্তা শোনা গেল।

তুমি এলে দুর্ধর্ষ এক আশ্বারোহীর মত

সকল জারাজীর্ণতাকে পায়ে সরিয়ে

রিক্ত ও শূন্য পত্রপল্লবে নতুনের

পতাকা উড়িয়ে ।

তুমি আসছ আমাদের ঘরে ঘরে

আশা ও আকাঙক্ষার শুভবার্তা নিয়ে

রবীন্দ্রনাথের কন্ঠে কণ্ঠ মিলিয়ে

আমরা উচ্চারণ করি,

এসো হে বৈশাখ, এসো এসো।

তুমি এসো হে বৈশাখ

কেবল শহুরে মানুষের বিনোদনের পার্বণ হয়ে নয়,

তাদের সুশোাভিত পাঞ্জাবি আর

উজ্জ্বল হাসিতে নয়,

মেয়েদের রংবেরঙের শাড়ির পাড় বা

অলংকার হয়ে নয়,

ব্যবসায়ীর নতুন হালখাতায় ভর করে নয়,

সারা বছরের একটি দিনকে সমুজ্জ্বল

করে কী লাভ তোমার

নবীন বৈশাখ ?

এবার তুমি এসো আমাদের এই পর্ণকুটিরে

সেখানে এক দুখিনী মা সানকিতে

সামান্য পান্তা আর সুটকি মাছা পোড়া নিয়ে

সন্তানের জন্য অপেক্ষায় থাকে।

ভর্তা তৈরির জন্য এতটুকু সরিষার

তেলও জোটেনি তার

ইলিশ মাছ খাওয়ার বিলাসিতার

কথা সে ভাবেনা কখনো ।

তুমি এসো আমাদের এই কুঁড়েঘরে

যেখানে পয়লা বৈশাখ কোনো

ফ্যাশন নয়, ফ্যাশন শো নয়,

এসো হে বৈশাখ,  এসো এসো।

আফরোজা পারভীন

Author: আফরোজা পারভীন

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

Related posts