পলিম্যাথ কবি!

polymath kobi

একজন কবির জন্য একটি কবিতা লেখা হবে

তাই একজন কবি রোজনামচা পাল্টে ফেলে তার  

তারপরও পান না কোন অথৈই কিনার!

আকাশ নামিয়ে তাই মেঘ এনে রাখে

বৃষ্টির জলে ভরে কস্তুরী ঘ্রাণ

আকাশের তারায় মাখে সোডিয়াম আলো

চাঁদের  কলঙ্কে রাখে রাশি রাশি ফুল

সূর্যের সান্নিধ্যে সে থাকে দিন রাত

কিন্তু কবিকে পান না সে কখনো নাগাল!

কবি থাকে সূর্যেরও বেশি গতিবেগে

তাই কবিকে স্পর্শ করতে মর্ত্যেই নামিলেন শেষে।

যেখানে সারি সারি আইনের লোক

নিয়ন বাতির আলোয় ফুল জল মাখে

মিনিটে মিনিটে করে কোটি টাকা ব্যয়-

পৃথিনীকে ধরে ফেলে হাতের মুঠোয়

বিশ্বকে ঘূর্ণায়মান একটি আপেল

নদীগুলো ম্যাপে মেপে তার হয়ে যায়!

বিচারের বাণীগুলো নিভৃতে কাঁদে

ফুলহাতে শিশুগুলো ঝলসানো রোদে

পুড়ে  পুড়ে তামাটে রং ফেরিওয়ালা সব

আয়েশী রমণীগুলো শুঁড়িখানায় রোজ

আলোছায়ায় পোট্রেট হয়ে ওঠে এক!

আর নামজাদা মানুষগুলো-

আকণ্ঠ নিমজ্জিত ঠিকানাবিহীন

প্রকৃত  কবির মতন ঠিকানা ভুলে যায় একান্ত সবার!

কবি তাই দেখে আর হাহাকার করে

খাতা  টেনে বসে করে বিজয় হিসাব

কিন্তু খতিয়ান যত বেশি গরমিল হয়

পলিম্যাথ কবিকে ডাকে মেলাতে হিসাব!

আকাশ পাতাল মর্তে- খুঁজে খুঁজে সকলেই হয় হয়রান

অবশেষে দেখা গেল কবি তো রয়েছে সবার শিথান পৈথান!

ড. শাহনাজ পারভীন
ড. শাহনাজ পারভীন

Author: ড. শাহনাজ পারভীন

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

Related posts