বিখ্যাতদের মজার ঘটনা

বিখ্যাতদের পরকীয়া

বিখ্যাতদের পরকীয়া

ব্যতিক্রম ব্যতিরেকে সব প্রাণীর মতো মানুষও বহুগামী। নারী কিংবা পুরুষ উভয়ের মধ্যেই বহুগামীতা বা পরকীয়ার প্রতি আকর্ষণ আদিকাল থেকেই বিদ্যমান। তবে সমাজে যার প্রভাব ও ক্ষমতা যত বেশি তার পরকীয়ার মাত্রা তত উর্ধ্বমুখি, যার ক্ষমতা কম সে অবদমিত করে রাখে এই গোপন আকাঙ্ক্ষাকে । অর্থাৎ মাতৃতান্ত্রিক সমাজে নারীর এবং পুরুষতান্ত্রিক সমাজে পুরুষের পরকীয়াই প্রকট হয়ে ওঠে। কিন্তু তারপরও পরকীয়া অবৈধ, তা শ্রীকৃষ্ণের আমলেই হোক কিংবা বর্তমান আমলে, আমাদের সমাজেই হোক কিংবা মার্কিন সমাজে। তবু পরকীয়া থেমে নেই, সমাজ না মানলেও তা চলছে তার নিজস্ব গতিতে। এখানে কয়েকজন বিখ্যাত ব্যক্তির গোপন পরকীয়ার কথা প্রকাশিত হলো-

 

সত্যজিৎ রায়

বিখ্যাত বাঙালি ভারতীয় চলচ্চিত্র পরিচালক সত্যজিৎ রায়ও পরকীয়া প্রেমে মজেছিলেন। ২০০৪ সালে প্রকাশিত সত্যজিৎ রায়ের স্ত্রী বিজয়া রায় তার আত্মজীবনীমূলক গ্রন্থে জানান, অভিনেত্রী মাধবী মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে সত্যজিত রায়ের প্রেম ছিল। একবার বিজয়া হাতেনাতে সত্যজিৎ রায়ের পরকীয়া প্রেম ধরে ফেলেন। এ জন্য সত্যজিৎ অবশ্য বিজয়া রায়ের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেন এবং প্রতিজ্ঞা করেন এমন কাজ আর কখনো করবেন না। সত্যজিৎ রায় নাকি আজীবন তার সেই কথা রেখেছিলেন- বিজয়া তার বইয়ে তেমনই উল্লেখ করেছেন।

 

হোরেশিও নেলসন

ব্রিটেনের জাতীয় বীর হিসেবে খ্যাত হোরেশিও নেলসন। ব্রিটিশ অ্যাডমিরাল হোরেশিও এক ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতের স্ত্রীর প্রেমে পড়েছিলেন। ইতালির বন্দরনগর নেপলসে নিয়োজিত ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত স্যার উইলিয়াম হেমিল্টনের স্ত্রী লেডি এমা হেমিল্টন ছিলেন অপরূপা সুন্দরী। হোরেশিও সেই রূপে মুগ্ধ হয়ে এমার প্রেমে পড়ে যান। এমনকি নেলসন এমার জন্য তার স্ত্রীর সাথে বিবাহবিচ্ছেদ ঘটান। অন্যদিকে স্বামীকে কিছু বুঝতে না দিয়ে হোরেশিওর ঔরসে এমা একটি কন্যাসন্তান জন্ম দেন। পরে উইলিয়াম হেমিল্টনের মৃত্যু হলে হোরেশিও এমার সাথে একত্রে বসবাস শুরু করেন।

 

ডেভিড লয়েড জর্জ

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড লয়েড জর্জের সঙ্গে তার ব্যক্তিগত সচিব ফ্র্যান্সিস স্টিভেনসনের প্রথম দেখা হয় ১৯১০ সালে। ফ্র্যান্সিস তখন ডেভিডের মেয়ে ম্যাগানের গৃহশিক্ষক ছিলেন। এ সময়ই ফ্র্যান্সিসের প্রতি আকৃষ্ট হন ডেভিড। এরপর হার্দিক দুর্বলতা থেকে ধীরে ধীরে গড়ে ওঠে প্রেম। ও জর্জের মধ্যে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। স্ত্রী মার্গারেট ওয়েনের মৃত্যুর ২ বছর পর ডেভিড ফ্র্যান্সিসকে বিয়ে করেন।

(সংগৃহীত)

Author: কঙ্কা রহমান

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

Related posts

মতামত দিন Leave a comment