মিতুদি সিরিজ-৭

মিতুদি সিরিজ-৪

মিতুদি হাসতে হাসতে বললো  দাঁড়াও পেপারটা আনতে দাও  ও যে বলে গেলো আমেরিকা লন্ডনে বৃষ্টি হবে। এই ঘটনার আসল মানেটা কি বুঝে নিই।
এরপর চা খেতে খেতে মিতুদি জিজ্ঞেস করলো,
-আচ্ছা তোমাকে যে গতকাল আম পাঠিয়েছিলাম আমগুলি খেয়েছিলে?
আমি বললাম, না এখনো খাইনি।
– খেয়ে দেখো মিষ্টি যেন গুড়।
-তাই?
তোমার দাদার এক বন্ধুর বাগানের আম।
– কাজের মেয়েটার হাত দিয়ে পাঠিয়েছি। ওর আবার চুরির অভ্যেস আছে।
– আচ্ছা আমগুলি গুনে দেখো তো ঠিকঠাক ছয়টা দিয়েছে কিনা?
– ঠিক আছে মিতুদি।
– দাদা আর বাচ্চাদেরও দিও খেতে।
– আচ্ছা।
দাদা খেয়ে কি বলেন আমাকে জানিও।
মিতুদির এই এক অভ্যেস।কিছু একটা আমার বাড়িতে পাঠিয়ে প্রশ্নের পর প্রশ্নে একেবারে জেরবার করে তোলে।
ভারি তো ছয়টা আম। এ নিয়ে এত প্রশ্নের কি আছে?
মিতুদি আবাত বললো, জানো আমি ওদের একদম বিশ্বাস করিনা।
একবার  বাটিতে করে তোমার বাসায় তরকারি পাঠাবো বলে কাজের বুয়াকে বললাম এই তুই আবার বাটি খুলে তরকারি চেটে দেখ বিনা কিন্তু।
বুয়া  এ কথাতে  চটে উঠে জবাব দিয়েছিলো
ক্যা চাইট্যা দেখুম ক্যা? এইডা কি কইলেন বিবিসাব?
আমি জিজ্ঞেস করলাম, তাতে বুয়া কি বললো?
আর বোলোনা  অভদ্রের মতো আমাকে সে উত্তর দিলো
আমার হাত দিয়া তা হইলে না পাডাইলেই পারেন।
আমি জোর করে হাসি চেপে রইলাম।
এর মধ্যে হালিমা সেদিনের খবরের কাগজটা আমাদের সামনে এনে পাতা উল্টিয়ে দেখালো  সে যে আমেরিকা লন্ডনে বৃষ্টি হবে বলেছিলো তা মিথ্যে নয়।
আমার আর মিতুদির  হালিমার দেখিয়ে দেয়া পাতার দিকে দৃষ্টি পড়তেই দেখি সেখানে মোটা মোটা হরফে লেখা আছে,
এমিকা আজ লন্ডনে বিবৃতি দেবেন।

অনুপা দেওয়ানজী
অনুপা দেওয়ানজী

Author: অনুপা দেওয়ানজী

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

Related posts

মতামত দিন Leave a comment