মেয়েদের হ্যা না

অধিকাংশ পুরুষের অভিযোগ, তারা  মেয়েদের মন বোঝে না। মেয়েদের নাকি বোঝাই যায় না।  এমন অপবাদও জোটে মেয়েদের। বিশেষজ্ঞদের মতে, এই কথা কিছুটা হলেও সত্য। মেয়েরা আসলে একটু বেশিই আবেগপ্রবণ। তাই তাদের কথায়বার্তায় একটা চাপা অনুভূতি লুকিয়ে থাকে।হ্যাঁকে না বলে, ‘নাকে বলেহ্যাঁ ফলে কোন কথাটার কী মানে, সেটা বোঝা সত্যিই কঠিন। সেই সব কথার আসল অর্থ জানতে উঁকি দিন নারীমনে। জেনে নিন মেয়েদের কোন কথার কী মানে

. ‘ওয়াও’ : মেয়েদের সবওয়াও কিন্তুওয়াওহয় না। অনেক সময় তিরস্কার জানাতেও তারাওয়াওবলেন। ক্ষেত্রেওয়াওবলার ধরনটা লক্ষ্য করতে হবে। তা হলেই বুঝে যাবেন পুরস্কার না তিরস্কার

. ‘বাদ দাওবাছেড়ে দাও’ : এই বাদ দেওয়া বা ছেড়ে দেওয়া কিন্তু একেবারেই বাদ দেওয়া বা ছেড়ে দেওয়া নয়। কোনো মেয়ে যদি এমন কথা বলে, জানবেন সেই বিষয়টি সে কোনো দিন ছাড়বে না বা বাদ দেবে না

. ‘আমার কিছু হয়নি’ : কোনো মেয়ে যদি বলে তার কিছু  হয়নি, জানবেন অনেক কিছু হয়েছে। মেয়েরা এমন কথা  তখনই বলে, যখন তারা অসম্ভব রেগে থাকে। তাই প্রথমেই কারণ জানতে চাইবেন না। আগে মাধা ঠাণ্ডা হতে দিন।  তারপর জিজ্ঞেস করুন। গলগল করে বলে ফেলবে

. ‘আমার কথা আছে’ : কোনো মেয়ে যদি এই কথা বলে, সতর্ক হয়ে যান। আপনার সঙ্গে অনেক পুরোনো হিসেবে নিকেশ করতে চায় সে

. ‘গো অ্যাহেড’ : এই গো অ্যাহেডের অর্থ কিন্তুগো অ্যাহেডনয়। এর মানে, থেমে যাও। কাজেই থেমে যান। মনঃপুত না হলে এমন উল্টো কথাই মেয়েরা বলে। ছেলেদেরও উচিত থেমে যাওয়া। এর কারণ একটাই। পছন্দসই কাজ হলে মেয়েরা নিজ থেকেই আগ্রহ প্রকাশ করে, বারবার প্রশ্ন করে অনেক কিছু জানতে চায়

. ‘ভালো’ : তর্কবিতর্কের সময় মেয়েরা বলে ভালো। এই ভালোর অর্থদারুণনয়, এর অর্থএবার থামো

. ‘না’ : রাগের মুখে মেয়েদেরনামানেই হ্যাঁ।..

(সংগৃহীত)

 

Author: রক্তবীজ ডেস্ক

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

Related posts