সে আমার সবচাইতে বড় বন্ধু

 

স্ত্রী : ওগো, দেখ, বাইরে থেকে একটা জুতো এসে ঘরে পড়ল।

মটকু ভাই : তুমি গান চালিয়ে যাও, তাহলে এর জোড়াটাও এসে পড়বে।

 

বন্ধুর বাড়িতে দাওয়াতে গেছে মটকু ভাই। হঠাৎ বন্ধুর বউয়ের হাত থেকে চায়ের কাপটা পড়ে ভেঙে গেল। বন্ধু বলে উঠল, গেল। দশ বছরে আমার বউয়ের হাত থেকে পড়ে যত বাসন ভেঙেছে তা দিয়ে এক দোকান হয়ে যেত।

শুনে মটকু ভাই বলল, কিন্তু এত ভাঙা বাসন কিনত কে?

 

বন্ধু : আমার স্ত্রী যার সঙ্গে পালিয়েছে সে আমার সবচাইতে বড় বন্ধু।

মটকু ভাই : তাই নাকি? লোকটা কি দেখতে খুবই সুন্দর?

বন্ধু : কী জানি, জীবনে তাকে দেখি নি তো।

 

দু’বন্ধুর মাঝে আলাপ হচ্ছে।

মটকু ভাই: স্ত্রীর জন্য আমার আর মুখ দেখাবার উপায় রইল না। রোজ রাতে বারে যায়।

বন্ধু : ছি : ছি : ছি : কী জঘন্য কথা! কী করে বারে গিয়ে?

মটকু ভাই : আমাকে টেনেহিঁচড়ে বাড়িতে নিয়ে আসে।

 

নবদম্পতির মাঝে ঝগড়া হয়েছে।

স্ত্রী : আমি বাপের বাড়ি চলে যাচ্ছি।

মটকু ভাই : এই নাও ভাড়া।

স্ত্রী : কত দিচ্ছ? এতে তো ফেরার ভাড়া হবে না।

 

Author: রক্তবীজ ডেস্ক

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

Related posts

মতামত দিন Leave a comment