২৫ বৈশাখের সাজ

সকালের সাজঃ

বৈশাখ মানে শুধু ১ বৈশাখ নয়, পুরো বৈশাখ মাস। পহেলা বৈশাখ ভোর বেলা রমনা, টি.এস.সি আর চারুকলায় না গেলে বৈশাখ মনেই হয় না। তেমনি বিভিন্ন অনুষ্ঠানে না গেলে ২৫ বৈশাখে মন ভরে না। আর ২৫ বৈশাখে রাবীন্দ্রিক সাজ হলেই ভাল হয়। যেমন  এদিনে সবাই সাদা আর লাল এর সংমিশ্রণে বিভিন্ন শাড়ি এক প্যাচে ঢংয়ে পরতে পারেন।  তবে  পুরো সাদা আর লাল চওড়া পাড়ের চওড়া শাড়ি পরলে বৈশাখের আমেজটা বেশি প্রকাশ পায়। সাথে ব্লাউজটা লাল রঙের ঘটি/থ্রি-কোয়াটার হাতায় রং বেরঙের লেস বা নকশার তৈরী হতে পারে, কুচিও হতে পারে। ব্রাউজের গলাতেও কুচি বা লেস থাকতে পারে। সকালের স্নিগ্ধতায় মুখে মেক-আপ কম করাই শ্রেয়। শুধু কমপ্যাক্ট, চোখ ভরে কাজল, মাশকারা, লালটিপ, লাল লিপষ্টিক পরলেই সৌন্দর্য্ বৃদ্ধি পাবে। মাল্টি কালারের মাটির গহনা, দুই হাতে কাঁচের চুড়ি, চুলটা উল্টিয়ে/মাঝে সিঁথি করে খোপা/বেণী করে তাতে বেশী করে বেলী ফুল জড়ালে সৌন্দর্য্ বেশী ফুটবে। পায়ে সাদা লাল এর মিশ্রণের জুতা হলে ভাল দেখাবে।

পুরো বৈশাখের সকাল জুড়েই মাঝে মাঝে আপনি করতে পারেন এমন সাজ।

দুপুর / বিকালের সাজঃ

দুপুরে যেহেতু গরম একটু বেশী থাকে তাই ঐ সময় দাওয়াতে বা বাইরে বের হলে অফ-হোয়াইট (ঘিয়া), গোল্ডেন এবং সাদা. লাল মিশ্রণের শাড়ি  পরতে পারেন। গহনা সুতা বা মাদুলী সেট হতে পারে এবং হাতে সুতার তৈরী চুড়ি। দুপুরের গরমে মুখে হালকা মেক-আপ-ই ভাল থাকে। চুল পনিটেইল/সুন্দর ডিজাইন করে বাধাই ভালো। পায়ে ড্রেসের সাথে মিলিয়ে স্লিপার পরা যেতে পারে।

পুরো বৈশাখের দুপুর/ বিকেলগুলোতে আপনি এমন সাজে সাজতে পারেন সুবিধামতো।

সন্ধ্যা/রাতের সাজঃ

সন্ধ্যার ড্রেস বা সাজে আমরা একটু চাকচিক্য ভাব আনতে পারি। আমরা গাঢ় রংয়ের শাড়ি পরতে পারি। যেহেতু  বৈশাখ সেহেতু প্রতিটি ড্রেসেই লাল রঙের প্রাধান্য থাকলে ভাল দেখাবে। গোল্ডেন/এ্যান্টিক ফ্যাশনেবল গহনা পরতে পারি। এসব ড্রেসের সাথে  কানে ভারী বড় কোন দুল পরা যেতে পারে। এক হাতে ঘড়ি আর অন্য হাতে এ্যান্টিক বালা জাতীয় পরলে মানাবে ভালো। চুল একটু আয়রন/ব্লো ডাই করে খুলে রাখা যায়। রাত যেহেতু তাই মেক-আপটা একটু ভারী করতে হবে। চোখ ভরা কাজল, আই-লাইনার, মাশকারা, আই শ্যাডো দিয়ে ইচ্ছে মতো নিজেকে সাজিয়ে আর পায়ে হাই হিল পরে সাজ-সজ্জার সমাপ্তি আনা যায়। এতেই বৈশাখী সাজে পূর্ণতা আসে।

তবে এদিন একপ্যাচের শাড়ি, কুচিওয়ালা ব্রাউজ আর খোপা বা চুলে বেলী ফুলের মালা মনোরম লাগবে।

আর এই সাজ আপনি নিতে পারেন পুরো বৈশাখের সন্ধ্যা আর রাতগুলোতে ইচ্ছেমতো।

সালমা মুন্নী
মুন্নী সালমা

 

 

Author: সালমা মুন্নী

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

Related posts

মতামত দিন Leave a comment