মাকে লেখা অগ্নিকন্যার শেষ চিঠি

মা সবার কাছে মা। তা যেমন দেশের প্রধানমন্ত্রীর কাছে তেমনি  দিন আনা দিন খাওয়া মজুরের কাছেও । বিপ্লবীদের কাছেও তাই। তারাও মাকে ভালবাসেন/ বেসেছেন প্রাণ দিয়ে। তার উত্ত্বল দৃষ্টান্ত রেখে গেছেন বীরকন্যা প্রীতলতা। মাকে লিখে গেছেন শেষচিঠি। পাহাড়তলী ইউরোপীয় ক্লাব আক্রমণ শেষে পূর্বসিদ্বান্ত অনুযায়ী গুলিবিদ্ধ প্রীতিলতা মুখে পটাসিয়াম সায়ানাইড পুরে দেন। আত্মাহুতির আগের রাতে প্রীতিলতা মায়ের উদ্দেশে এই চিঠিটি লিখেছিলেন। তাঁর মৃত্যুবরণের পর মাষ্টারদা এই পত্রটি প্রীতিলতার মায়ের হাতে পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করেন। আসুন আমরা চোখ রাখি মাকে লেখা অগ্নিকন্যার শেষ চিঠিতে-   মাগো, তুমি আমায় ডাকছিলে? আমার যেন মনে…

Read More

মাতৃমহান

১৪ মে ‘বিশ্ব মা দিবস’ ॥ বাণিজ্যিকিকরণের বিরুদ্ধে আন্দোলন-আদালত ‘বিশ্ব মা দিবস’ পালন নিয়ে কিছুটা বিভ্রান্তি ঘটে থাকে। অনেকে পালন / স্মরণ করেন মে মাসের প্রথম রোববারেই। কিন্তু তা সঠিক না। কারণ মা দিবসের জন্যে সময়কালটি পূর্ব নির্ধারিত। সেটি প্রতিবছর মে মাসের দ্বিতীয় রোববার। যেমনটি বিশ্ব শিশু দিবস বা বিশ্ব বসতি দিবস। এগুলো উদযাপিত হয় অক্টোবর মাসের প্রথম সোমবার। এর ফলে, প্রতিবছর তারিখের অদল-বদল ঘটে। অর্থাৎ ক্যালেন্ডারে আগে বার, পরে তারিখ। ‘বিশ্ব মা দিবস’ প্রথমত প্রতিষ্ঠা পেয়েছে অ্যামেরিকায়। ১৯০৮ সাল থেকে পালিত হচ্ছে। এর নেপথ্য সংগঠক অ্যানা জারভিস। অ্যামেরিকার ওয়েস্ট…

Read More

মাকে নিয়ে পৃথিবীর সেরা গল্প

মে ১৪! মা দিবস! মায়ের জন্য  বিশেষ দিন!  হয় নাকি কোনওদিন! মা ছাড়া জীবনের একটা মুহূর্তও ছিল নাকি ! ছিলাম যাঁর জন্য, রয়েছি যাঁর জন্য, থাকার প্রার্থনাও যে সবথেকে বেশি করে, তাঁর জন্য নাকি মাত্র ১ টা বিশেষ দিন! গোটা জীবনটাই তো মা – তোমারই জন্য। মা-ই তো আমাদের সব। আমাদের দিন রাত, বছর মাস,যুগ, শতাব্দী । তাই আর দিবস কি! তবু আজ শোনাই সেই গল্পটাই। যা বোধহয় সবাই জানেন। এই পৃথিবীতে মাকে নিয়ে যত গল্প শুনেছেন, তার মধ্যে এই গল্পটারই চল সবথেকে বেশি। তাই হতেই পারে এই গল্পটা আপনার…

Read More

আমার মা

ঝিরিঝিরি করে লাউ কুটতো মা ভারি সুন্দর করে চুড়ি গুলি তাঁর বাজতো তখন রিনিরিনি মিঠে সুরে । কান পেতে আমি শুনতাম আর শুনতাম সেই সুর মনে হোতো যেন বাজতো সেতার একটানা সুমধুর । স্নান সমাপন হয়ে যেতো মার সূর্যোদয়ের ভোরে ছোটো এক পিঁড়ি পেতে বসতেন ভেজা কুন্তল ছেড়ে। লাল টুকটুকে শাড়ির পাড়টি আধো ঘোমটায় ঢাকা সূর্যোদয়ের মতোই থাকতো সিঁদুর টিপটি আঁকা। ভোরের আলোর সুর্যকিরণ খেলতো শরীর বাঁকে ভারি সুন্দর, ভারি অপরূপ লাগতো আমার মাকে।। চোখ বুজলেই আমি সেই ছবিখানি দেখি যেন বারবার- মার চুড়িগুলি রিনিরিনিরিনি তোলে মধু ঝংকার। আজ শুধু…

Read More