আমার মুক্তিযুদ্ধ

আমার মুক্তিযুদ্ধ

সেদিনের সেই রাতটা ছিলো ঘোর অন্ধকার। অমন অন্ধকার রাত আমি কমই দেখেছি । পায়ের নিচে পঁচা কাদা।  কাদার মাঝে কিলবিল করছে অজস্র¯ জোঁক। কয়েকটা আমার পায়ের আঙুল কামড়ে রক্ত চুষে স্বাস্থ্যবান হচ্ছে। দু’ চারটে রক্ত শুষে নিয়ে খসেও পড়েছে। আমার  কোন বোধ নেই। চারধারে  কচুঝোঁপ । ঝাঁঝালো দুর্দন্ধে ভারি হয়ে আছে বাতাস। সে বোধও নেই আমার। আমার সারাটা চেতনা জুড়ে একটাই বোধ কাজ করছে, ধরা পড়া চলবে না। বসে আছি কচুঝোপের মাঝে । কতক্ষণ  জানি না। তারপর আস্তে আস্তে এগিয়ে  এলো একটা আলোর শিখা। একচিলতে আলো,  বেঁচে থাকার আশ্বাস, প্রাণের…

Read More

একাত্তুরের গল্প

একাত্তুরের গল্প

যে যত পার, একাত্তুরের গল্প বল। রক্তে ভেজা, তাঁজা গল্প । কঠিন দিনের গল্প যুদ্ধের গল্প । গর্বের গল্প, সাহসের গল্প অহংকারের গল্প । গল্প বল দিন বদলের। তোমাদের সব সত্য গল্প রেখে যাও প্রজন্মের হাতে । প্রজন্মের বোঁধকে খুঁচিয়ে রক্তাক্ত কর- গল্প বল আমার নিরীহ মাকে ধর্ষনের । গল্প বল নির্ঘুম রাতের । গল্প বল আমার পূর্বপুরুষের বুকে বেয়নেটের আঘাতের । গল্প বল সেই ১৬ই ডিসেম্বরের যেদিন সন্তান যুদ্ধে শহীদ হয়েছে শুনেও মায়ের চোখে ছিল অশ্রু সম্মানের । আর নয় ঘুম পাড়ানি গান প্রজন্মকে জাগিয়ে রাখ গল্প বল একাত্তুরের…

Read More

ম্যাজিক মেডেল

ম্যাজিক মেডেল

মাহফুজা নামটির প্রতি কি যেন এক সান্ধ্যকালীন ছাতিম সন্ধ্যার দরদ আজীবন চুঁয়ে চুঁয়ে পড়ে। শুধু আদর কেন? যখন কবিতার লাইন হয়ে ওঠে মাহফুজার প্রেম ও বন্দনার একমাত্র শব্দ তখন অন্য এক আবহ তৈরি হয় আজীবন।   ‘মাহফুজা তোমার শরীর আমার তসবির দানা আমি নেড়েচেড়ে দেখি আর আমার এবাদত হয়ে যায়।’   কিন্তু আজ হঠাৎ মাহফুজা নামের ওপর আরশ হতে কি এক লানত বর্ষিত হতে থাকে! অথচ মাহফুজা যখন এসএ ফেডারেশনের প্রশিক্ষণে ঢুকছিল তখনও ওর মন ছিল চনমনে। শরীর ছিল ঝরঝরে। ও সকালে ঘড়ি ধরে এক ঘন্টা ঘাম ঝরিয়ে হেঁটেছে আজ।…

Read More

স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের ‘চরমপত্র’

স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের ‘চরমপত্র’

১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের সাথে ওতোপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছে স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের নাম। বস্তুত এই বেতারকেন্দ্র ছিল মুক্তিযুদ্ধের দ্বিতীয় ফ্রন্ট। ১৯৭১ সালের ২৫ শে মার্চ তৎকালীন পাকিস্তানের শাসকবর্গ তাদের হিংস্র সামরিক বাহিনী নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে এদেশের সাড়ে সাত কোটি মানুষের উপর। শুরু হয় পৃথিবীর ইতিহাসের সবচেয়ে ঘৃণ্যতম গণহত্যা। সে নির্মমতার কথা বর্তমান প্রজন্মের সন্তানেরা চিন্তাও করতে পারবে না। ২৫ শে মার্চ রাতে শুধু ঢাকা শহরেই হানাদার বাহিনী অন্তত পঁচিশ হাজার মানুষ হত্যা করে। নিরস্ত্র বাংঙালী জাতির প্রতিরোধ শীঘ্রই ভেঙ্গে পড়ে। ঢাকার পরে তারা নতুন উৎসাহে সারা দেশে ধ্বংসলীলা শুরু করে। ১৯৭০…

Read More

ভালো থেকো প্রিয় বাংলাদেশ

ভালো থেকো প্রিয় বাংলাদেশ

”সবকটা জানালা খুলে দাওনা ”আমি গাইবো গাইবো বিজয়েরই গান। ৩০ লক্ষ শহীদের রক্তে, আর দুই লক্ষ মা বোনের সম্ভ্রম হারিয়ে অর্জিত হে স্বাধীনতা। তুমি আসবে বলে কত প্রতীক্ষা কত না বলা গল্প জমিয়ে রাখা । একদিন দেশ স্বাধীন হবে তখন সবাইকে বলবো আমার যুদ্ধজয়ের গল্প। আজ সেই স্বাধীনদেশে আমার গল্প কেউ শুনতে আসে না। যারা পাকিস্তানীদের দোসর আজ তারাই মঞ্চে দাঁড়িয়ে দু হাত নাড়িয়ে কত মিথ্যাচার করছে আর সবাই, তাই যেন বিশ্বাস করছে। কেউ আমার কাছে জানতে চায় না, আমার পরিচয় আমি একজন মুক্তিযোদ্ধা। আমার অর্জন এই স্বাধীন দেশ ।…

Read More

আমার বিজয়

আমার বিজয়

এই নাও মা সবুজ শাড়ি টিপ এনেছি লাল। মনে করে পোড়ো মাগো বিজয় দিবস কাল। বিজয় দিবস রোজই আমার বুকের ভেতর ওরে। সুর,অসুরের দড়ির সে টান ভুলবো কেমন করে? আমার সে টিপ উড়ে গিয়ে সেদিন ছিটকে গিয়ে দড়ির টানেই সেঁটে গেছে পতাকার ওই গায়ে। সেই থেকে ওই লাল টিপ টা পতাকার ওই বুকে। সাক্ষী হয়ে  পতাকাতেই আছে পরম সুখে।    

Read More