খনার বচনে টিকটিকি তত্ত্ব

Khonar Bochon খনার বচন

আজ থেকে ১৫০০ বছর পূর্বে জন্ম নেওয়া ইতিহাসের এককিংবদন্তি ‘খনা’ বা ‘ক্ষণা।‘ কোন এক শুভক্ষণে তার জন্মবলে নাম দেওয়া হয় ‘ক্ষণা।‘ আর ‘ক্ষণা‘ থেকেই ‘খনা‘ নামের উৎপত্তি বলে মনে করা হয়। খনা ছিলেন সিংহলরাজার কন্যা। কথিত আছে, খনার আসল নাম লীলাবতী।তিনি ছিলেন জ্যোতির্বিদ্যায় পারদর্শী। তাঁর রচিতভবিষ্যতবাণীগুলোই মূলত ‘খনার বচন’ নামে আমরাজানি।   দিকের নির্ণয় করি বুঝহ সুবুদ্ধি ঊর্ধভাগে হলে ধন ভোগ কার্যসিদ্ধি। পূর্বদিকে অগ্নিকোণে হলে ভয় হয় দক্ষিণেতে অগ্নিভয় জানিহ নিশাচয়। নৈঋুতে কলহ লাভ পশ্চিমেতে ভাব। বায়ূকোণে নববস্ত্র, গন্ধ, জয় লাভ। টিকটিকি আর হাঁচি যদি এক যোগ হয় স্ত্রী লাভ কারণে তাহা জানিবে নিশ্চয়। উত্তরে টিকটিকির ডাকে সুখলাভ কারণ ঈশানে হৈলে মৃত্যু কে করে বারণ।   খনার বচনে গর্ভবতীর পেটের সন্তানের জেন্ডার নিরুপণ বা খনার বচনে গর্ভস্থ সন্তানের স্বরূপ নির্ণয় পদ্ধতি: বানের পেটে দিয়ে বান পেটের ছেলে গুণে আন। নামে মাসে করি এক আটে হবে সন্তান দেখ। এক তিন থাকে…

Read More

আজ পহেলা বৈশাখ

আজ পহেলা বৈশাখ ফিরোজ শ্রাবন

গাছে গাছে আমের মুকুল দেখে ভাবি পহেলা বৈশাখ এলো বলে। গ্রামে একটা সুন্দর ব্যাপার হল প্রকৃতি আপনাকে বলে দেবে এখন কোন কাল চলছে গ্রীষ্ম, বর্ষা, নাকি শরৎকাল। তবে অনেকে হয়ত ১৪২৫ বঙ্গাদে এসে বলবেন, এখন প্রকৃতির রূপ নির্ণয় করা কঠিন । সত্যি কথা যাই হোক, গ্রামে আমরা সাধারণত গাছের মুকুল দেখেই ভাবতাম বৈশাখ এলো বলে। কিন্তু কবে আসবে তা জানার জন্য বড়দেরকে প্রতিনিয়ত বিরক্ত করতে হত । কারণ পহেলা বৈশাখ মানে কিন্তু বৈশাখীমেলা । আমি সব কিছু ভুলতে পারি বৈশাখীমেলার কথা ভুলতে পারবো না । শৈশবের এই আনন্দের দিন কি…

Read More

বৈশাখ আমাদের খরতাপে ঝড়

বৈশাখ আমাদের খরতাপে ঝড় ড. শাহনাজ পারভীন

‘বৈশাখ’ হলো বঙ্গাব্দ বা বাংলা সনের প্রথম মাস । এটি নেপালি পি কা ক্রিম সম্বৎ ও পাঞ্জাবি নানকশাহি পঞ্জিকার প্রথম মাস। গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জির এপ্রিল মাসের শেষার্ধ ও মে মাসের প্রথমার্ধ নিয়ে বৈশাখ মাস। বৈদিক পঞ্জিকায় এই মাসকে মাধব মাস এবং বৈষ্ণব পঞ্জিকায় একে মধুসূদন মাস বলে। অধিকাংশ বাংলা মাসের নামকরণ হয়েছে নক্ষত্রের নামে। বৈশাখ শব্দটি এসেছে বিশাখা নামক নক্ষত্রের নামে। এই মাসে বিশাখা নক্ষত্রটিকে সূর্যের কাছে দেখা যায়। বৈশাখ মাসের প্রথম দিনটি বাংলা নববর্ষ। এই দিনটি বাংলাদেশে ‘পহেলা বৈশাখ’ ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গ, আসাম ও ত্রিপুরা রাজ্যে ‘পয়লা বৈশাখ’ নামে পরিচিত।…

Read More

এসো হে বৈশাখ

এসো হে বৈশাখ আফরোজা পারভীন

চৈত্রদিনের শেষে তোমার আগমনী বার্তা শোনা গেল। তুমি এলে দুর্ধর্ষ এক আশ্বারোহীর মত সকল জারাজীর্ণতাকে পায়ে সরিয়ে রিক্ত ও শূন্য পত্রপল্লবে নতুনের পতাকা উড়িয়ে । তুমি আসছ আমাদের ঘরে ঘরে আশা ও আকাঙক্ষার শুভবার্তা নিয়ে রবীন্দ্রনাথের কন্ঠে কণ্ঠ মিলিয়ে আমরা উচ্চারণ করি, এসো হে বৈশাখ, এসো এসো। তুমি এসো হে বৈশাখ কেবল শহুরে মানুষের বিনোদনের পার্বণ হয়ে নয়, তাদের সুশোাভিত পাঞ্জাবি আর উজ্জ্বল হাসিতে নয়, মেয়েদের রংবেরঙের শাড়ির পাড় বা অলংকার হয়ে নয়, ব্যবসায়ীর নতুন হালখাতায় ভর করে নয়, সারা বছরের একটি দিনকে সমুজ্জ্বল করে কী লাভ তোমার নবীন বৈশাখ…

Read More