৮৯তম অস্কার আসর 

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার লস অ্যাঞ্জেলেসে বিশ্ব চলচ্চিত্রের সর্বাপেক্ষা মর্যাদাসম্পন্ন পুরস্কার অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ডের (অস্কার ) ৮৯তম আসর বসে।
বাংলাদেশ সময় সোমবার সকাল সাড়ে ৭টায় অনুষ্ঠান শুরু হয় লস অ্যাঞ্জেলেসের ডলবি থিয়েটারে। সেখান থেকে সরাসরি সম্প্রচার করা হয় বিশ্বজুড়ে।
এবারের সবচেয়ে বেশি আলোচিত সিনেমা ছিল ‘লা লা ল্যান্ড’। কিন্তু সেই ‘লা লা ল্যান্ড’কে পেছনে ফেলে হলিউডের শ্রেষ্ঠ সিনেমা হিসেবে অস্কার মুকুট জিতে নিয়েছে পরিচালকক বেরি জেনকিনসের ‘মুনলাইট’।

তবে ভুল করে শ্রেষ্ঠ সিনেমা হিসেবে প্রথমে ‘লা লা ল্যান্ড’র নাম ঘোষণা করা হয়। শেষাবধি তা সংশোধন করে ‘মুনলাইট’কে শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র হিসেবে ঘোষণা দেয়া হয়।

এবার মনোনয়ন তালিকায় সবার ওপরে ছিল ‘লা লা ল্যান্ড’। রায়ান গসলিং ও এমা স্টোনের ‘লা লা ল্যান্ড’ মনোনয়ন ক্যাটাগরিতে ১৪টি বিভাগে মনোনয়ন পেয়ে রেকর্ড করে। তবে শেষ পর্যন্ত সেরা ছবি হিসেবে অস্কার না পেলেও পাঁচটি পুরস্কার তার ঘরে আসে।

‘লা লা ল্যান্ড’র পুরস্কারের মধ্যে সেরা পরিচালক হিসেবে অস্কার জিতেছেন ডেমিয়েন শ্যাজেল, সেরা অভিনেত্রী হয়েছেন এমা স্টোন। এছাড়া অরিজিনাল সং ক্যাটাগরিতে লা লা ল্যান্ডের ‘সিটি অব স্টারস’, সেরা সিনেমেটোগ্রাফি, সেরা প্রোডাকশন ডিজাইন ক্যাটাগরিতে পেয়েছে পুরস্কার।

অন্যদিকে পিছিয়ে থাকা ‘মুনলাইট’ হঠাৎ আলোর ঝলকানি দিয়ে জ্বলে উঠেছে। দ্বিতীয় সর্বাধিক মনোনয়ন পেয়েছিল ছবিটি। সে মনোনয়ন ছিল ৮টি ক্যাটাগরিতে । ছবিটির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন মাহেরশালা আলি। যিনি এবারের আসর থেকে প্রথম অস্কার জেতা মুসলিম অভিনেতা।

ছবিতে আরো অভিনয় করেছেন নওমি হ্যারিস, জনেলে মোনা প্রমূখ।

ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞা হারাতে পারলো না ইরানের অস্কার জয়কে
৮৯তম অস্কারে ইরানের ‘দ্য সেলসম্যান’ বিদেশি ভাষার চলচ্চিত্র বিভাগে সেরার পুরস্কার জিতেছে। ছবিটির পরিচালক আসগর ফারহাদি। ধর্ম ও জাতীয়তার দোহাই তুলে তাকে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে বাধা দেয়া হয়েছিল।

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সাতটি মুসলিম দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞার জারি করেন। প্রতিবাদে অস্কার বয়কট করেছিলেন পরিচালক আসগর ফারহাদি।

ইরানিয়ান পরিচালক আনুশেষ আনসারি আসগর ফারহাদির পক্ষে পুরস্কার গ্রহণ করেন। আসগর ফারহাদির লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান তিনি।

লিখিত বক্তব্যে আসগর ফারহাদি অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে না পারার জন্য দু:খ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, আমার এই আসরে অনুপস্থিতি আমার দেশের জনগণ এবং অন্যান্য ছয় দেশের নাগরিক যাদের অমানবিক অভিবাসি আইন জারি করে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে মূলত তাদের অসম্মানিত করা হয়েছে।

দ্য সেলসম্যান ছাড়া এই বিভাগে আরো মনোনয়ন পেয়েছিলেন ডেনমার্কের ল্যান্ড অব মাইন, অস্ট্রেলিয়ার ট্যানা , সুইডেনের আ ম্যান কলড উভা ও জার্মানির টনি আর্ডমান।

Author: রক্তবীজ ডেস্ক

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

Related posts