রাঙা প্রজাপতি 

এ কঠিন মৃত্তিকায় তুমি আকাশ দেখো না
এবার আমি তোমাকে দেবো চাঁদের মায়া
কোথাও পাও না তুমি সবুজ শ্যামল বৃক্ষরাজি
আমি তোমাকে দেবো বৃক্ষের ছায়া।
মেঘলা আকাশ তবু আমি সূর্য থেকে
নিঃসঙ্কোচে তোমার দু চোখে দেবো এক ঝলক রোদ।

ক্রোধ ভাসে সমর্পিত শাসনের
শোধ নেওয়ার অস্ফুট আকাঙ্ক্ষা হেসে ওঠে সহজ উদ্যানে।

আমি দেবো গন্ধবহ ফুলের ঘ্রাণ
ভালোবাসা মায়া আর মমতার দান।

মন আর মানসের সব রঙ ছুঁয়ে চিরন্তন ভাবসূত্র
এসে ধরা দেয় প্রেমসূত্রে।
ঠোঁটের পাপড়ি ছড়িয়ে
অন্তহীন আনন্দ আনন দিয়ে
এঁকে দেবো যৌবনের গান!
দূর সমুদ্রে ভাসমান জাহাজের মতো
পাহাড়ের খাদ থেকে নেমে আসা ঝর্নার মতো
আমি তোমাকে দেবো বিশ্বস্ত কলতান
কেবল মেয়ে তুমি হয়ে ওঠো রাঙা প্রজাপতি
দুর্বিনীত আকাঙ্ক্ষার জৈব সুন্দরী!

Author: রাশেদ রউফ

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

Related posts

মতামত দিন Leave a comment