শীতঃ জীবন বসন্তের স্বপ্ন দেখাক 

প্রবল শীতের তোড়ে যদি জবুথবু হয় যায় সবকিছু
প্রকৃতি হারায় যদি সব শ্যামলিমা অবলীলাক্রমে
ম্লানাভাসে করুণ নীরব-রোদনধ্বনি যদি নিভৃত সংলাপে কাঁদে
শৈত্যপ্রবাহ যদি গৃহাভ্যন্তরেও অন্তরীণ রাখতে চায় অনির্দিষ্টকাল
নিশ্চিত প্রত্যয়ী উচ্চারণে উচ্চকণ্ঠে বলি সমুন্নত এ জনপদের প্রবল মানুষেরা হবে না ম্রিয়মান।

অন্তর্গত জীবন-বসন্তে উজ্জীবিত অপার মানুষেরা চির-বসন্তে রঙ্গীন।
শীতের কুজ্ঝটিকাকেও অনায়াসে রূপান্তরিত করে দেয় বাসন্তী সজ্জায়
গ্রীষ্মের দাবদাহ হৃদয়-অমলতায় হয়ে ওঠে হৃদ-শস্য ভারাবনত অম্লান মধুর
শারদীয় শুভ্রতায় হেসে ওঠে জরাক্রান্ত জনপদে বর্ণ-রঙ্গিন মানুষের প্রভা।

আক্রমক শীত যদি প্রবল হুংকারে আগ্রাসনে ধেয়ে আসে
তাপমাত্রা নিম্নমুখি হতে হতে অতি দ্রুত নেমে যায়
উত্তরের শীতল বায়ুপ্রবাহ যদি অস্থিতে মজ্জায় কাঁপুনি ধরায়
শৈতাক্রান্ত ঠকঠক ধ্বনি যদি স্ফীতোদর সুপ্রকাশ হয়ে ওঠে, তবু ভয় নেই।

দ্যাখো, অন্তর্গত শুচি-অগ্নি ছড়াচ্ছে মোহন-তাপ নিরবধি
দ্যাখো, হৃদয়জ উত্তাপে মন্দীভূত হয়ে যাচ্ছে বরফ-কাঠিন্য
দ্যাখো, শুষ্ক-প্রায় বিশীর্ণ ডালেডালে প্রচ্ছন্ন কিশলয় উঁকি দেয়
দ্যাখো, এভাবেই মৃতের নগরী থেকে সাগ্রহে জীবন কেমন আলপনা এঁকে যায়!

শীতকে তিরষ্কারে ধিক্কারে বিতাড়িত করতে চাইবেনা আর
শীত তো জীবনাগমন স্বপ্নের প্রারম্ভিক শুচি-শুভ্র দূত
শীত হোক অমল জীবনের শঙ্খধ্বনি এক
শীত আমাদেরকে জীবন-বসন্তের স্বপ্ন দেখাক আবহমান।

 

Author: সাঈফ ফাতেউর রহমান

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

Related posts