গতানুগতিক/আহমেদ শরীফ শুভ

টিভিটা ছাড়াই ছিল। সংবাদে কান যেতেই নাইমা’র মনোযোগে চিঁড় ধরলো। তার দৃষ্টি ছিল অরুণের চোখে। মনোযোগ ছিল তার জামার বোতামে। এই ব্যাপারে নাইমা আর পাঁচটা মেয়ের মতো নয়। ওর কথা শুনে শিউলি অবাক হয়েছিল।   তুই সত্যি একটা যা তা। কী যে বলিস!   কেন আমি কি চুরি করছি, নাকি অন্য কোন অপরাধ করছি? চোখ বন্ধ করে রাখবোই বা কেন, নিচের দিকেইবা তাকিয়ে থাকবো কেন?   তোর লজ্জা করে না বুঝি!   ধুর গাধী! কলেমাও পড়েছি, কাগজেও সই করেছি। লজ্জা করবে কেন? জামাই বলে কথা। আমি যা কিছু করি ওর…

Read More

রু মোপাসাঁ/ শাহনাজ পারভীন

অভির ইচ্ছে ছিল ও কাশবনের কবি হবে। সবাই যখন মহাকবি, বিশ্ব কবি, জাতীয় কবি, পল্লীকবি, রেনেসাঁর কবি, নৈঃশব্দ্যের কবি ইত্যাদি নানা অভিধায় উপাধিতে ভূষিত কবি হয়েছেন, সেখানে ওর বেশি কিছু চাওয়ার নেই। ও নিটোল কাশবনের কবি হতে চায়। এ স্বপ্নটা ওর আজন্ম। সরকারী এম এম কলেজে এইস এসসি পড়ার সুবাদে যখন প্রথম হাঁটি হাঁটি পা পা করে গ্রাম থেকে যশোর শহরে পা রাখে, সেই তখন থেকেই। ওর এলাকার ছেলেরা যখন ঝিনাইদহ কেসি কলেজে ভর্তি হবার স্বপ্ন দেখেছিল, ও তখন এক ধাঁপ এগিয়ে ছিল যশোর এম এম কলেজ পর্যন্ত। কলেজে ভর্তি…

Read More

লাস্ট ডিজিট ৫৬/ রনি রেজা

মোবাইল ফোনটা বেজেই চলছে। বিরক্তিকর ব্যাপার। যখন একটু তাড়াহুড়া লাগে তখন ফোনও বেয়াড়া হয়ে ওঠে। অনুষ্ঠান শুরু হবার কথা সকাল ১০টায়। ইতিমধ্যে ৮টা বেজে গেছে। এখনই বের না হলে সময়মতো পৌঁছানো যাবে না। এখনও আবার শাড়ী পড়া হয়নি। একা একা শাড়ী পড়ার অভ্যেস খুব একটা নেই। সব মিলিয়ে মেজাজ খিটমিট অবস্থা। বিরক্তি সহকারে মোবাইল ফোনটা হাতে নেয় অনামিকা। ওমনি বুক ধুকপুক অবস্থা। স্ক্রিনে ভাসছে সেই পরিচিত লাস্ট ডিজিট ৫৬। হ্যাঁ সাগরই। শান্ত সাগর। চার বছর আগে এ নম্বর থেকে ফোনের জন্য নিয়মিত অপেক্ষা করতো অনামিকা বারী। এখনো কি করে না?…

Read More

স্বার্থপর/ দীলতাজ রহমান

আমি আমার মা-বাবার একমাত্র সন্তান। আমার বাবা সরকারের একজন ডাকসাইটে আমলা। অর্থবিত্ত, ব্যক্তিস্বাধীনতার কখনো কোনো অভাব ছিলো না আমার জীবনে। আমার বাবার একটিমাত্র ভাই ছিলেন। তিনি বহু বছর আগে মারা গেছেন নিঃসন্তান অবস্থায়। সেই সূত্রে আমার বাবা তার পৈতৃক সম্পত্তিরও একচ্ছত্র অধিপতি। আর সেসব সম্পত্তি তিনি আগলেও রেখেছেন  প্রবলপ্রতাপে। গ্রামের বিশাল বাড়িটিতে এতদিন পাহারায় নিয়োজিত থেকেছেন আমার চাচার বিধবা স্ত্রী। সেখানে আরো আছে একদঙ্গল চাকর-দাসী, গরু-ছাগল, হাঁস-মুরগী, কুকুর-বেড়াল। এদের সবার মধ্যে চাচিআম্মাই ছিলেন সর্বেসর্বা। কিন্তু কস্মিনকালে দামি গাড়িটি হাঁকিয়ে আমরা যখন গ্রামে যাই, আমার বাবা-মায়ের দাপটে বাড়ির মানুষগুলোও কুকুর-বেড়ালে পরিণত…

Read More

১৯৭৫য়ের সেই কালো দিনটিতে

  সিলেট থেকে ঢাকায় বদলী হয়ে এসেছি সবেমাত্র। মালপত্র সবই পড়ে আছে অফিসের গোডাউনে। পাঁচতলা   একটি বাড়ির তিনতলা এপার্টমেন্ট ভাড়া করা হয়েছিলো তড়িঘড়ি করে রাজারবাগ এলাকায়। আমরা এসে উঠলাম সেই বাড়িতে ১২ কি ১৩ই আগষ্ট। সেদিন ছিলো ১৫ই আগস্ট। আমি ভোরে ঘুম থেকে উঠেই নাস্তা বানাবার জন্যে রান্না ঘরে ঢুকেছি।পরোটা তৈরি করবো বলে আটা মাখছিলাম।  হঠাৎ শুনি দোতলা থেকে খোলা জানালা দিয়ে রেডিও থেকে উচ্চস্বরে  আওয়াজ ভেসে আসছে আমি মেজর ডালিম বলছি। স্বৈরাচারী শেখ মুজিবকে হত্যা করা করা হয়েছে। সাথে সাথে আমার হাত থেকে আটার পাত্রটা মেঝেতে ঠন করে পড়ে…

Read More