দূর / সৈয়দা জান্নাত

আমি ও তোমাকে ওই চাঁদের মতো দুর থেকে দেখে যাবো, ঘনো কালো আধাঁরের মাঝে, তোমার এতো রূপ আমি তো বারা বার প্রেমে পড়ি। তুমি আমার হৃদয় মাঝে এক সুর তোলো, সেই সুরের মূর্ছনাতে আমি বার বার মুগ্ধ। তাই তো তোমার ও হাসিটা আমাকে তোমার কাছে টানে, তুমি আছো অজানা কোন এক দীপপুঞ্জে, যেখানে আমার ভালোবাসার করুণ সুর তোমার কান পর্যন্ত পৌছাবে না। তুমি কি কখনোই বুঝবেনা আমার এই আকুলতা, বার বার ছুটে গিয়ে ক্ষতবিক্ষত হয়ে মলিন মুখে তোমাকেই দেখেছি, এ যে এক অসীম ভালোবাসার টান যা তুমি কোন দিন বুঝবে…

Read More

পলিম্যাথ কবি!

polymath kobi

একজন কবির জন্য একটি কবিতা লেখা হবে তাই একজন কবি রোজনামচা পাল্টে ফেলে তার   তারপরও পান না কোন অথৈই কিনার! আকাশ নামিয়ে তাই মেঘ এনে রাখে বৃষ্টির জলে ভরে কস্তুরী ঘ্রাণ আকাশের তারায় মাখে সোডিয়াম আলো চাঁদের  কলঙ্কে রাখে রাশি রাশি ফুল সূর্যের সান্নিধ্যে সে থাকে দিন রাত কিন্তু কবিকে পান না সে কখনো নাগাল! কবি থাকে সূর্যেরও বেশি গতিবেগে তাই কবিকে স্পর্শ করতে মর্ত্যেই নামিলেন শেষে। যেখানে সারি সারি আইনের লোক নিয়ন বাতির আলোয় ফুল জল মাখে মিনিটে মিনিটে করে কোটি টাকা ব্যয়- পৃথিনীকে ধরে ফেলে হাতের মুঠোয়…

Read More