বিখ্যাতদের খাদ্যাভ্যাস/ কঙ্কা রহমান

অ্যাঞ্জেলিনা জোলি সে সময় কম্বোডিয়ায় ছিলেন অ্যাঞ্জেলিনা। খুব উৎসাহ নিয়েই স্থানীয় খাবার খেয়েছিলেন। পরে জানিয়েছিলেন, তিনি এমন এক ‘স্ন্যাক ফুড’ খেয়েছেন, যেটা প্রোটিনে ভরপুর। কী বলুন তো জিনিসটা? আরশোলা! অ্যাঞ্জেলিনাও জেনেশুনেই খেয়েছিলেন। একটাই নাকি অসুবিধা হয়েছিল তাঁর। ‘‘আরশোলার পেটের উপরে একটা ছুঁচলো অংশ থাকে, যেটা কোনওমতেই খাওয়া যায় না,’’ বলেছিলেন অ্যাঞ্জেলিনা। অবশ্য শুধু আরশোলা কেন? ছেলে ম্যাডক্সের সঙ্গে ঝিঁঝিপোকা খেয়েছিলেন। চেখে দেখেছিলেন মৌমাছির ‘লার্ভা’ও। সেটা অবশ্য অ্যাঞ্জির পছন্দ হয়নি! ম্যাডোনা যত্ন করে খাবার বানালেন। টেবিলে সাজালেন। চেয়ার টেনে বসে খাবার তুলে নিলেন মুখের কাছে। কিন্তু খেলেন না! প্রাণভরে গন্ধ নিয়ে…

Read More

মটকু ভাই/ রক্তবীজ ডেস্ক

মটকু ভাই

জানালাটা খুলে দিয়ে যান   মটকু ভাই হোটেল ম্যানেজারের সঙ্গে ফোনে কথা বলছে মটকু ভাই : দয়া করে তাড়াতাড়ি ৫০৬ নম্বর কক্ষে চলে আসুন। হোটেল ম্যানেজার : কেন, সমস্যা কী? মটকু ভাই : আমার স্ত্রী জানালা দিয়ে লাফ মেরে আত্মহত্যা করতে চাচ্ছে। হোটেল ম্যানেজার : আপনি স্বামী হয়ে কিছু করছেন না। আর আমি হোটেল ম্যানেজার হয়ে কী করতে পারি, বলুন? মটকু ভাই : আরে ভাই, এখন কথা বলার সময় নয়। তাড়াতাড়ি চলে আসুন। কারণ, আমার স্ত্রী কিছুতেই জানালা খুলতে পারছে না। জানালাটা খুলে দিয়ে যান।   চাঁদটা কী সুন্দর!  …

Read More

গ্রেটওয়ালের দেশে – ২৮তম ও শেষপর্ব / শরীফ রুহুল আমীন

    নানজিং এর হ্রদে পানি দেখে বেশ উল্লসিত লাগলো কেননা বেইজিং এ এরকম হ্রদ বরফের আস্তরে ঢাকা পড়ে আছে। বেইজিং এর চেয়ে এখানে চার-পাঁচ ডিগ্রী বেশি তাপমাত্রা। আমরা মহামতি কনফুর্সিয়াসের টেম্পলের একেবারে ভেতরে প্রবেশ করলাম এবার। এখানে কনফুর্সিয়াসের মূর্তি তো আছেই, অধিকন্তু কনফুর্সিয়াস যেভাবে তার শিষ্যদের  জ্ঞানগর্ভ কথা বলতেন আর ভক্তরা তা শুনতেন সেরকম একটি প্রাঙ্গন স্থাপন করা হয়েছে। মূল ভবনের ভেতরের দেয়ালে কনফুর্সিয়াসের ওপর বিভিন্ন মিথিক্যাল কথাবার্তার বর্ণনা আছে। উদাহরণ স্বরূপ-‘দুই ড্রাগন ও পাঁচ বৃদ্ধ’ শিরোনামের একটি কাহিনীর খোদাইকৃত সচিত্র বর্ণনা এরকমঃ ‘কনফুসিয়াস জন্মগ্রহণের রাতে দুটি ড্রাগন সে…

Read More

সেই সব নানারঙের দিনগুলি-২: সুন্দর তুমি চক্ষু ভরিয়া এনেছ অশ্রুজল/ শামসুল আরেফিন খান

পৃথিবীর যত অন্ধকার  আছে সবই আলোর কাছে হার মানে।তাইতো গুণীজনেরা বলে  থাকেন, রাতের আঁধার যত ঘনঘোর হবে , ভোর হবে ততো উজ্জ্বল। ঊষার আলোর উদ্ভাস হবে ততোই তীক্ষ্ণ তীব্র।- “উষার দুয়ারে হানিয়া আঘাত /  আমরা আনিব রাঙা প্রভা/ ,আমরা টুটাব তিমির রাত / বাধার বিন্ধ্যাচল/ নবজীবনের গাহিয়া গান/ সজীব করি মহাশ্মশান/ আমরা দানিব নতুন প্রাণ”। কিন্তু পৃথিবীর সব আলো যদি অন্ধকারের কাছে হেরে যায়  তাহলে ? তাহলে কী হবে? মহাপ্রলয়ে পৃথিবী কী ধ্বংস হয়ে যাবে? অন্ধবিশ্বাসের  ন‘মণ বোঝা নিয়ে জ্ঞানপাপী ও মূর্খের দল খুব সরব, উচ্চকন্ঠ , সোচ্চার।কলহ বিবাদে দ্বন্দ্ব…

Read More

গতানুগতিক/আহমেদ শরীফ শুভ

টিভিটা ছাড়াই ছিল। সংবাদে কান যেতেই নাইমা’র মনোযোগে চিঁড় ধরলো। তার দৃষ্টি ছিল অরুণের চোখে। মনোযোগ ছিল তার জামার বোতামে। এই ব্যাপারে নাইমা আর পাঁচটা মেয়ের মতো নয়। ওর কথা শুনে শিউলি অবাক হয়েছিল।   তুই সত্যি একটা যা তা। কী যে বলিস!   কেন আমি কি চুরি করছি, নাকি অন্য কোন অপরাধ করছি? চোখ বন্ধ করে রাখবোই বা কেন, নিচের দিকেইবা তাকিয়ে থাকবো কেন?   তোর লজ্জা করে না বুঝি!   ধুর গাধী! কলেমাও পড়েছি, কাগজেও সই করেছি। লজ্জা করবে কেন? জামাই বলে কথা। আমি যা কিছু করি ওর…

Read More

বাংলা নীলকান্ত/ রক্তবীজ ডেস্ক

বাংলা নীলকান্ত (Coracias benghalensis) (ইংরেজি Indian Roller) কোরাসিডি পরিবারের অন্তর্গত কোরাসিয়াস গণের এক প্রজাতির বিরল পাখি । এরা বাংলাদেশের স্থানীয় পাখি । দেশের সর্বত্র দেখতে পাওয়া যায় । পাখিটি নীলকণ্ঠ  নামে পরিচিত । কিন্তু কণ্ঠ নীল নয় বলে বাংলাদেশ বার্ড ক্লাব এর নামকরণ করেছে বাংলা নীলকান্ত ।  আই. ইউ. সি. এন. এই প্রজাতিটিকে Least Concern বা আশংকাহীন বলে ঘোষণা করেছে। বাংলাদেশে এরা Least Concern বা আশংকাহীন   বলে বিবেচিত। বাংলাদেশের বন্যপ্রাণী আইনে এ প্রজাতিটি সংরক্ষিত। বাংলা নীলকান্ত আকারে ২৬ থেকে ২৭ সে মি হয়ে থাকে । এদের বুক বাদামী বর্ণের । মাথার উপরের অংশ নীল । এদের দেহের রঙ গাঢ় বেগুনি নীল এবং দেহের কিছু…

Read More

গ্রেটওয়ালের দেশে- ২৭তম পর্ব / শরীফ রুহুল আমীন

আট জানুয়ারি দুহাজার সতেরো। রোববার। আজ আমরা পিকিং ইউনিভার্সিটি দেখবো বলে বেরিয়েছিলাম। কিন্তু পিকিং ইউনিভার্সিটি ক্যাম্পাসের প্রধান ফটক বন্ধ ছিল বলে সেটি সম্ভব হলো না। ইউনিভার্সিটিতে পরীক্ষা চলছিল বিধায় এসময় ক্যাম্পাসে সাধারণের প্রবেশ নিষিদ্ধ বলে গেটকিপার জানালেন। সুতরাং সেখান থেকে আমরা বেইজিং এর বিখ্যাত ল্যাণ্ডমার্ক সিসিটিভি দেখতে চললাম। সিসিটিভি চায়না সেন্ট্রাল টেলিভিশন টাওয়ার যা বেইজিং এর কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত। ৪০৫ মিটার উঁচু এই টাওয়ার শীর্ষে রয়েছে একটি ঘূর্ণায়মান রেস্তোঁরা বা রোটেটিং রেস্টুরেন্ট। পর্যটকরা এ রেস্তোঁরায় আরোহন করে ঘুরতে ঘুরতে চা নাশতা বা ভোজন করতে পারেন। তবে তা বেশ ব্যয়বহুল। এখানে কিছু…

Read More

এই হল…. আমাদের বল্টু/ ফরহাদ হোসেন

how to change wife

বল্টু যে বাড়িতে কাজ করে ওই বাড়ীর মালিকের হুইস্কির বোতল থেকে দু –এক পেগ চুরি করে খায় আবার সমপরিমাণ পানি মিশিয়ে রেখে দেয়। মালিকের সন্দেহ হত কিন্তু কিছু বলত না। কিন্তু যখন এটা রোজ হতে লাগলো,, তখন একদিন ড্রইংরুমে বৌয়ের সাথে বসে চিৎকার করে বল্টুকে ডাকতে লাগল। বল্টু তখন রান্না ঘরে রান্না করছিল। বল্টু জবাব দিল, –জি মালিক -আমার হুইস্কির বোতল থেকে হুইস্কি খেয়ে পানি মিশিয়ে কে রাখে? রান্না ঘর থেকে কোন উত্তর এলো না। মালিক চিৎকার করে একই প্রশ্ন আবার করলেন কিন্তু কোন জবাব নেই। মালিক রেগে রান্না ঘরে…

Read More

দূর / সৈয়দা জান্নাত

আমি ও তোমাকে ওই চাঁদের মতো দুর থেকে দেখে যাবো, ঘনো কালো আধাঁরের মাঝে, তোমার এতো রূপ আমি তো বারা বার প্রেমে পড়ি। তুমি আমার হৃদয় মাঝে এক সুর তোলো, সেই সুরের মূর্ছনাতে আমি বার বার মুগ্ধ। তাই তো তোমার ও হাসিটা আমাকে তোমার কাছে টানে, তুমি আছো অজানা কোন এক দীপপুঞ্জে, যেখানে আমার ভালোবাসার করুণ সুর তোমার কান পর্যন্ত পৌছাবে না। তুমি কি কখনোই বুঝবেনা আমার এই আকুলতা, বার বার ছুটে গিয়ে ক্ষতবিক্ষত হয়ে মলিন মুখে তোমাকেই দেখেছি, এ যে এক অসীম ভালোবাসার টান যা তুমি কোন দিন বুঝবে…

Read More

রূপচর্চা/ রক্তবীজ ডেস্ক

লেবুর ১৫ রকম উপকারিতা :- ১/ লেবুতে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি, যা এন্টিসেপটিক ও ঠাণ্ডা লাগা প্রতিরোধ করে । লেবুর এই উপাদানগুলো টনসিল প্রতিরোধ করে। ২/ এছাড়া লেবুর ভিটামিন সি ক্যান্সারের সেল গঠন প্রতিরোধ করে। ৩/ লেবু বুক জ্বালা প্রতিরোধ করতে ও আলসার সারাতে সাহায্য করে। ৪/ লেবু আর্থাইটিসের রোগীদের জন্য ভালো । ৫/ লেবু শরীরের ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়াগুলোকে ধ্বংস করে। ৬/ লেবু এন্টিঅক্সিডেন্ট। তাই ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধির পাশাপাশি ত্বক পরিষ্কার রাখে । ত্বকের বুড়িয়ে যাওয়া রোধ করে। কালোদাগ ও ত্বকের ভাঁজ পড়া কমায়। ৭/ লেবু ওজন কমাতে সাহায্য করে।…

Read More