সেই সব নানা রঙ এর দিন গুলি ‍‌।।পর্ব ১২।।/ শামসুল আরেফিন খান

জুডাসের  চুমু ও বিভীষণ যুগে যুগে বিষাক্ত কেউটে   সাপের নিবিড় চুমু মানে নির্ঘাৎ মরণ। বিশ্বাসঘাতক জুডাসের  চুম্বন ছিল তার চাইতেও ভয়ানক এবং ঘৃণ্য।ধর্মাবতার যিশুর সব থেকে বিশ্বস্ত ও ঘনিষ্ঠ  ১২ শিষ্য এবং অনুসারীর অন্যতম সেই নরাধম জুডাস মানবজাতির কলঙ্ক । জেরুজালেমের রোমান  কর্তৃপক্ষ যিশুকে রাজদ্রোহী ঘোষণা করে মৃত্যু পরোয়ানা জারি করেছিল। চারিদিকে অনুচর পাঠিয়েছিল  তাঁকে গ্রেফতার করার জন্য। কিন্তু রোমানরা কেউ তাকে চিনতো না আর স্থানীয় আরবরা সবাই ছিল যিশুর ভক্ত । সেটাই ছিল তাদের  সবচেয়ে বড় সমস্যা।। সাতিল আরব ছিল তখন রোমানদের পদানত। রোম সম্রাট দাবি করতেন তিনিই ঈশ্বর।…

Read More

সেই সব নানারঙের দিনগুলি-২: সুন্দর তুমি চক্ষু ভরিয়া এনেছ অশ্রুজল/ শামসুল আরেফিন খান

পৃথিবীর যত অন্ধকার  আছে সবই আলোর কাছে হার মানে।তাইতো গুণীজনেরা বলে  থাকেন, রাতের আঁধার যত ঘনঘোর হবে , ভোর হবে ততো উজ্জ্বল। ঊষার আলোর উদ্ভাস হবে ততোই তীক্ষ্ণ তীব্র।- “উষার দুয়ারে হানিয়া আঘাত /  আমরা আনিব রাঙা প্রভা/ ,আমরা টুটাব তিমির রাত / বাধার বিন্ধ্যাচল/ নবজীবনের গাহিয়া গান/ সজীব করি মহাশ্মশান/ আমরা দানিব নতুন প্রাণ”। কিন্তু পৃথিবীর সব আলো যদি অন্ধকারের কাছে হেরে যায়  তাহলে ? তাহলে কী হবে? মহাপ্রলয়ে পৃথিবী কী ধ্বংস হয়ে যাবে? অন্ধবিশ্বাসের  ন‘মণ বোঝা নিয়ে জ্ঞানপাপী ও মূর্খের দল খুব সরব, উচ্চকন্ঠ , সোচ্চার।কলহ বিবাদে দ্বন্দ্ব…

Read More

সেই সব দিনগুলি-১: চিহ্ন তব পড়ে আছে তুমি হেথা নাই/ শামসুল আরেফিন খান

পরম প্রিয় সুহৃদ শুভ হঠাৎ করেই চলে গেলো। আমার ছোটবেলার আর কোন অকৃত্রিম বন্ধুই সপ্রাণ স্পন্দিত  রইলোনা এই রূঢ় পৃথিবীতে। ।কুসংস্কৃার ও মিথ্যাচারের বিরুদ্ধে সরব, চিন্তাশীল লেখক কবি সাংবাদিক নিবন্ধকার ও অন্ধ বিশ্বাসের বিরুদ্ধে অনমনীয়  আপোসহীন যোদ্ধা আমার পরমপ্রিয় সাথীর অনুপস্থিতিতে আজ এ বয়সে যেন বড় একা হয়ে গেলাম।পাঠকের মনের সব   অন্ধকার সরাতে ইতিহাসের  উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত টেনে অসির চাইতে ক্ষিপ্র মসি চালিয়েছে যে অক্লান্ত   কলমযোদ্ধা , সে চলে গেলো অনেক অন্যায়-বঞ্চনার অভিমান নিয়ে। কলমযুদ্ধে অপরাজিত  সৈনিক জীবনযুদ্ধেও কখনও হার মানেনি।আপোস করে বিবেকের একইঞ্চি জমিনও ছাড়েনি আমার পরমপ্রিয়  বন্ধু শুভ রহমান।স্বচ্ছ…

Read More

অবিশ্বাস থেকে বিদ্রোহ তার থেকে বিপ্লব

অবিশ্বাস থেকে বিদ্রোহ তার থেকে বিপ্লব শামসুল আরেফিন খান

বিভাজন রেখা এত গভীর যে তা কলঙ্কের মত অনপনেয়।কোন উপায় নেই মুছে ফেলার।এই বিভাজনের উৎসে রয়েছে মানুষের বিশ্বাস । সেটা সত্যোপলব্ধি  না হয়ে অন্ধবিশ্বাসও হতে পারে।অন্ধ বিশ্বাসের অপর নাম আনুগত্য। অন্ধ বিশ্বাস না থাকলে  আনুগত্য টলে যায়। পৃথিবীতে এখন  উৎপন্ন সমস্ত সম্পদের ৮০ ভাগই কেবল+একভাগ মানুষের কুক্ষিগত হয়েছে।এটা অনুমান নয় , পরিসংখ্যান।এখন সংখ্যাগরিষ্ঠ দরিদ্র ভাগ্যাহত মানুষ যদি অন্ধবিশ্বাসচ্যুত হয়, অবাধ্য হয়ে ওঠে তা হলে বিশ্বের স্থিতাবস্থার পরিণতি কী হতে পারে তাও চিন্তার বা অনুমানের অগম্য নয়। ফেরাউন যুগের ক্রিতদাশ ২০ ঘন্টা অমানুষিক শ্রম দিয়ে ভাবতো এটাই তার নিয়তি। ভাগ্যের লিখন…

Read More

দুর্ভাগ্য রজনী  ও বীরের মৃত্যু

পনের আগস্ট রাতের ভয়াবহতা, বিভীষিকা ও রহস্যময়তা নিয়ে  নতুন করে আষাঢ়ে গল্প ফেঁদে একটি স্বার্থান্বেষী মহল আবারো  পানি ঘোলা করার প্রয়াস পাচ্ছে।কাদা পানিতে  মাছ ধরার সেই অসাধু খেলাই  হবে হয়ত। এমনটি ভাবার সঙ্গত কিছু কারণ ঘটেছে সম্প্রতি। কিন্তু কুশিলব  কারা ?সেকথা জনা হয়নি  এখনও । তারা বলছে সে রাতে ক্ষমতা দখলের জন্যে দুটো সামরিক অভ্যুত্থান হয়েছিল।প্রথম অভ্যুত্থান হয়েছিল ভারত-সোভিয়েত  সমর্থিত একটি প্রভাবশালী গোষ্ঠীর  নেতৃত্বে।তারা বামপন্থী ।তারা শহর ঘিরে ফেলেছিল।বড় সেনাবাহিনী ছিল তাদের হাতে।“সেই অভ্যুত্থানেই বঙ্গবন্ধু শহীদ হন।” তারা আঙুল তুলছে শেখ ফজলুল হক  মনি  ও আব্দুর রব সেরনিয়াবাতের দিকে।নেপথ্যে ছিলেন…

Read More

সেই মনিহার ও মায়াবী সোনার হরিণ

সেই মনিহার ও মায়াবী সোনার হরিণ

রাজনীতি নিরপেক্ষ নির্বাচনী মোর্চা পাইয়োনিয়ার্স ফ্রন্টের কর্ণধার বদরুল। ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের আমি। বদরুলের নেতৃত্বাধীন পাইয়োনিয়ার্সফ্রন্টের মনোনয়নে শাহাদাত জিতে গেলো সাধারণ সম্পাদক পদে।আমার দলের প্রার্থী সেন্ট গ্রেগোরির মেধাবী ছাত্র ওসমান ফারুক (সাবেক শিক্ষা মন্ত্রী)মাত্র ৫ ভোটে হেরে গেলো। মিষ্টভাষী সদালাপি শাহাদাতের চোখে মুখে একটা বিনয়ের হাসি কাঁঠালের আঠার মত লেগেই থাকতো। সেটাই তাকে সবার কাছে প্রিয় করে তুলেছিল। এদিকে বছর না গড়াতেই বিমান বাহিনী থেকে ডাক আসলো তার । তাতে সাড়া দিয়ে সে টাটা বাই বাই করে বিদায় নিলো।প্রমোদ সম্পাদক মহীউদ্দীন খান আলমগীর ঢাকা কলেজ ছাত্র সংসদের   সাধারণ সম্পাদকের বাড়তি দায়িত্ব পেলো।তার…

Read More

ঘনঘোর শ্রাবনে মহামানবের মহাপ্রয়ান

“ব্যাকুল বেগে আজি বহে যায় /বিজুলি থেকে-থেকে চমকায় / যে কথা এ জীবনে রহিয়া গেলো   মনে /সে কথা আজি যেন বলা যায় /এমন ঘনঘোর বরিষায় ”   “মিছে জীবনের কলরব/ কেবল আঁখি দিয়ে আঁখি সুধা পিয়ে/ হৃদি দিয়ে হৃদি অনুভব/ আঁধারে মিশে গেছে আর সব” ঘনঘোর বর্ষার দিনে এই ছিল কবির নিজের অনুভব।কবি চলে গেলেন সেই শ্রাবণ দিনে তাঁর শত কোটি ভক্তহৃদয়ের  আকাশও তেমনি আঁধারে ছেয়ে গেলো। কেঁদেছিল  মানুষ সেদিন।ছিলনা জীবনের কোন কলরব!   ২২ শ্রাবণ ।আকাশভরা সঘন মেঘে ঢাকা কলকাতার সড়কে তিল ঠাঁই নেই।সারি সারি অশ্রু সজল মানুষের…

Read More

সেই মনিহার ও মায়াবী সোনার হরিণ

সেই মনিহার ও মায়াবী সোনার হরিণ

রাজনীতি নিরপেক্ষ নির্বাচনী মোর্চা পাইয়োনিয়ার্স ফ্রন্টের কর্ণধার বদরুল। ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের আমি। বদরুলের নেতৃত্বাধীন পাইয়োনিয়ার্স ফ্রন্টের মনোনয়নে শাহাদাত জিতে গেলো সাধারণ সম্পাদক পদে।আমার দলের প্রার্থী সেন্ট গ্রেগোরির মেধাবী ছাত্র ওসমান ফারুক (সাবেক শিক্ষা মন্ত্রী)মাত্র ৫ ভোটে হেরে গেলো। মিষ্টভাষী সদালাপি শাহাদাতের চোখে মুখে একটা বিনয়ের হাসি কাঁঠালের আঠার মত লেগেই থাকতো। সেটাই তাকে সবার কাছে প্রিয় করে তুলেছিল। এদিকে বছর না গড়াতেই বিমান বাহিনী থেকে ডাক আসলো তার । তাতে সাড়া দিয়ে সে টাটা বাই বাই করে বিদায় নিলো।প্রমোদ সম্পাদক মহীউদ্দীন খান আলমগীর ঢাকা কলেজ ছাত্র সংসদের সাধারণ সম্পাদকের বাড়তি দায়িত্ব পেলো।তার…

Read More

হরিষে বিষাদ,  মায়ের চোখে জল

হরিষে বিষাদ মায়ের চোখে জল শামসুল আরেফিন খান

অবচেতন  মনে ডুবে থাকা অনেক  বেদনা বিধুর স্মৃতি  খুবই ভারি । কোন  কোন স্মৃতি আবার পাখির পালকের মত হালকা ।সে সব স্মৃতি মনকে আপ্লুত করে আনন্দে ।খুশিতে মনটা ভরে ওঠে। ছোটবেলার তেমন একটা  স্মৃতিকথা ভেবে মনে হচ্ছে কতই না সরল আর বোকা ছিলাম তখন।আমার  চেয়ে এগার বছরের বড় ভাই ‘শ্রীকান্ত’ পড়ছিলেন বিছানায় শুয়ে।আমার  ৫ বছর ও ৩ বছরের বড় দুই বোন আর আমি শুনছিলাম সে গদ্যকাহিনী তার শিয়রে বসে। সব কথা বুঝার বয়স তখনও হয়নি।তবুও বললাম, ভাইজান  ওই জাগাটা আবার পড়েন। কোন জাগা ? আমি বললাম, ওই যে কিলা কিলির…

Read More

আমি আপনারে ছাড়া করিনা কাহারে কূর্ণিশ

বিশ্বসাহিত্যে একেক সময় এক এক ধরণের ইজমের বা দার্শনিক মতবাদের প্রভাব এসেছে। কখনও সুপিয়ারিলিজম, কখনও মিস্টিসিজম,কখনও ফিউচারিলিজিম।এমন শতাধিক ইজম আবর্তিত হয়েছে সৃজনশীল মননে। মানুষের চিন্তা উপলব্ধি ও বোধ পরিবর্তিত হয়ে এগিয়ে যায় পরিপক্কতার দিকে। তারই ধারাবাহিকতায় বিভিন্ন সময়ে ভিন্ন ভিন্ন ইজমের প্রভাব ব্যাপক হয়ে ওঠে।এরকম একটি ইজম বা দর্শন হ’ল অস্তিত্ববাদ, ইংরেজি ‘এক্জিসটেনশিয়ালিজম’।মানব হৃদয়ের ক্ষরণে জর্জরিত আত্মা , এক সময় দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেলে অস্তিত্ববান হয়ে ওঠে এবং শক্ত অবস্থান গ্রহণ করে। কখনও প্রতিবাদী, কখনও সংগ্রাম মুখর হয়ে ওঠা।বেঁচে থাকাটাই চরম সত্য।এ বোধ কার্যকর হয়, একনিষ্ঠ হয়। এ বোধ থেকেই…

Read More