তারাগুলি নিবিড় নিশীথে যবে জ্বলবে…………….. ছবি বিশ্বাস/ লিয়াকত হোসেন খোকন

বাংলা চলচ্চিত্র জগতে ছবি বিশ্বাস নামটি এক অমলিন স্মৃতি। ১৯৬২ সালের ১১ জুন বাংলা চলচ্চিত্র ও নাট্যজগতের অনন্য শিল্পী – নটসম্রাট ছবি বিশ্বাস আকস্মিক এক মোটর দুর্ঘটনায় পরলোকগমন করেন। তারপর ৫৬ টি বসন্ত পেরিয়ে গেলেও তিনি বাঙালির প্রিয় তারকা হয়ে রইলেন। তাঁর খ্যাতির বিস্তার শুধু বাঙলার মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিল না। আঞ্চলিক ছবির অভিনেতাদের মধ্যে যাঁরা সর্বভারতীয় খ্যাতি ও স্বীকৃতি পেয়েছিলেন ছবি বিশ্বাস তাঁদের মধ্যে অন্যতম।        তাঁর অভিনীত – কাবুলীওয়ালা, জলসাঘর, শুভদা, শুন বরনারী, শশীবাবুর সংসার, হেডমাস্টার, দাদা ঠাকুর, কাঞ্চনজঙ্ঘা , পৃথিবী আমারে চায়, ষোড়শী – ইত্যাদি ছবির কথা সবারই জানা।…………..

Read More

গরুর কালো ভুনা/ রক্তবীজ রান্নাঘর

কালোভুনা গরুর মাংসের এক মজার খাবার। খুব কম জনই আছেন এই খাবারটি যারা চেটেপুটে খান না। তবে রেসিপি  হয়ত অনেকেই জানেন না। আজ দিচ্ছি এই লোভনীয় খাবারটির রেসিটপি। প্রয়োজনীয় উপকরণ: গরুর মাংস দেড় কেজি, আদা বাটা ১ টেবিল চামচ, রসুন বাটা আধা চা চামচ, হলুদ গুঁড়া আধা চা চামচ, মরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ, ধনে গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া আধা টেবিল চামচ, এলাচ, দারচিনি , তেজপাতা কয়েকটি, গরম মসলা গুঁড়া আধা চা চামচ, লবণ পরিমাণমতো, সরিষার তেল পরিমাণমতো, পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ। প্রস্তুত প্রণালী: গরুর মাংসের সঙ্গে সব…

Read More

ঋতু বৈচিত্র্যময় / ইশরাত তানিয়া

একটি দুষ্প্রাপ্য ভোর আসতে পারে মিলিয়ন মিলিয়ন স্নায়ুকোষে। সচরাচর হয় না যেমন। দরজার নিচের সামান্য ফাঁক দিয়ে সাঁই করে ঢুকে যায় আধেক কিংবা পুরো একটি পত্রিকা। তেমনি একটি সকাল চলে আসে অনুভবে। রোজকার নিয়মিত ঘটনা ঠেলে সরিয়ে একটি সকাল হয়, যার কথা গতকাল কেউ ভাবেনি। আগামীকালের ভোরটিও হতে পারে অভাবিত। তার জন্য রইল কিছু সময় যাপন। কিছুটা কালক্ষেপণ। অনন্ত মহাকালের হিসেবে একটি সকাল আপাতদৃষ্টিতে গুরুত্বহীন। সাদামাটা তেমনি এক সকালে স্টীলের আলমারির আয়না থেকে টিপ তুলে কপালে পরল লুবনা। কিছু না ভেবেই। একটা ছোট কালো বৃত্ত মিষ্টি উজ্জ্বল শ্যামলা মুখে হেসে…

Read More

নদ-নদীর জন্য এলিজি/ আফরোজা পারভীন

আমাদের বেশিরভাগ নদীই আজ বিপন্ন। দূষণ আর মানুষের লোভের ফাঁদে বন্দি। শ্রীহীন, স্রোতহীন। যৌবন হারিয়ে ধুঁকে ধুঁকে চলেছে।  এখন আর সেভাবে দেখি না জোয়ার ভাটার খেলা। স্রোতের উদ্দামতা। নৌকা লঞ্চ স্টিমারের নাচন। আমাদের  দেশ নদীমাতৃক । অর্থাৎ নদী  আমাদের দেশের মা। অসংখ্য নদী অধ্যুষিত আমাদের এই  দেশ । অতুলনীয় সুন্দর নামের নদীগুলি বয়ে চলেছে দেশের ভিতর দিয়ে সেই অতীত কাল হতে । অনেক নদী চলতে চলতে গতি হারিয়েছে। চর পড়েছে নদীতে। মরেও গেছে।  একই দশা জলাশয়গুলোরও। কর্ণফুলী, তুরাগ, শীতলক্ষ্যা, বালু, গোমতী, বাঁকখালি, বোয়ালখালী, ইছামতি, পুনর্ভবা, সুরেশ্বরী, ব্রহ্মপুত্র, হালদা, সাংগু, মাতামুহুরী…

Read More

বিখ্যাতদের খাদ্যাভ্যাস/ কঙ্কা রহমান

অ্যাঞ্জেলিনা জোলি

বিখ্যাতদের খাদ্যাভ্যাস/ কঙ্কা রহমান অ্যাঞ্জেলিনা জোলি সে সময় কম্বোডিয়ায় ছিলেন অ্যাঞ্জেলিনা। খুব উৎসাহ নিয়েই স্থানীয় খাবার খেয়েছিলেন। পরে জানিয়েছিলেন, তিনি এমন এক ‘স্ন্যাক ফুড’ খেয়েছেন, যেটা প্রোটিনে ভরপুর। কী বলুন তো জিনিসটা? আরশোলা! অ্যাঞ্জেলিনাও জেনেশুনেই খেয়েছিলেন। একটাই নাকি অসুবিধা হয়েছিল তাঁর। ‘‘আরশোলার পেটের উপরে একটা ছুঁচলো অংশ থাকে, যেটা কোনওমতেই খাওয়া যায় না,’’ বলেছিলেন অ্যাঞ্জেলিনা। অবশ্য শুধু আরশোলা কেন? ছেলে ম্যাডক্সের সঙ্গে ঝিঁঝিপোকা খেয়েছিলেন। চেখে দেখেছিলেন মৌমাছির ‘লার্ভা’ও। সেটা অবশ্য অ্যাঞ্জির পছন্দ হয়নি!   ম্যাডোনা যত্ন করে খাবার বানালেন। টেবিলে সাজালেন। চেয়ার টেনে বসে খাবার তুলে নিলেন মুখের কাছে। কিন্তু…

Read More

যৌতুক প্রথা এবং একজন নারী/ সাবেরা সুলতানা

যৌতুক প্রথা এবং একজন নারী/ সাবেরা সুলতানা   ইসলামী দর্শণে মুসলিম বিবাহে যৌতুক থাকার কথা নয়। কিন্তু ভারতবর্ষে কীভাবে মুসলিমদের ভিতর যৌতুক প্রথা চালু হয়ে গেল , এটা একটা গবেষণার বিষয়। কোন কোন মুসলিম দেশে বরং উল্টো নিয়ম চালু আছে। সেটা হলো কন্যার বাবাকে পণ দিয়ে বিয়ে করতে হয়। যৌতুক নেওয়া এবং দেওয়া দুই-ই খারাপ এবং জঘন্য অপরাধ। যৌতুক প্রথা নারীকে কেনা-বেচা ছাড়া আর কিছুই নয়। ভারতে মুসলিম শাসকেরা সামাজিক উন্নয়নে অনেক ভালো কাজ করেছিল কিন্তু হিন্দুদের যৌতুকপ্রথা তারা  নিজেদের করে নিয়েছে অথবা তারা ধর্ম বিশ্বাস বদল করেছে বটে। কিন্তু তাদের…

Read More

কেন আশা বেঁধে রাখি/ ফিরোজ শ্রাবন

কেন আশা বেঁধে রাখি

কেন আশা বেঁধে রাখি/ ফিরোজ শ্রাবন সাবানের শেষ অংশ যখন আর ফেনা দেয় না তখন অন্য সাবানের সাথে জোড়া দিয়ে গায়ে মাখার আনন্দ যেন হারিয়ে যাচ্ছে আমার থেকে। শ্যাম্পুর কৌটা যখন আর সহযোগিতা করতে চায় না তখন পানি দিয়ে ঝাঁকাই আর ভাবি, এর থেকেও কিছু রেখে দিব যেন আর একবার মাথায় দিতে পারি । মাত্র তিন দিন হয়ত সময় পাব এর মধ্যে নতুন শ্যাম্পু না কিনলে সর্বনাশ হয়ে যাবে!  কারণ মাথায় গন্ধ হয়ে গেলে নিজের প্রতি আর আস্থা থাকে না। তাছাড়া যদি এমন হয় যে, কোন প্রেমের সূচনা হয়ে যায়…

Read More

মটকু ভাই / রক্তবীজ ডেস্ক

মটকু ভাই

মটকু ভাই/ রক্তবীজ ডেস্ক   খুব চেনা চেনা ঠেকছে স্ত্রী : কী ব্যাপার, আয়নার সামনে অতক্ষণ ধরে দাঁড়িয়ে কী দেখছ?  মটকু ভাই : এই ভদ্রলোককে খুব চেনা চেনা ঠেকছে, কিন্তু কোথায় দেখেছি কিছুতেই মনে করতে পারছি না। মুখ বন্ধ ডাক্তার : এই থার্মোমিটারটা আপনার স্ত্রীর মুখের নিচে দিয়ে আধমিনিট মুখ বন্ধ করে রাখতে বলবেন। তাহলেই জ্বর কত সেটা টের পাওয়া যাবে। মটকু  ভাই : ডাক্তার সাহেব, সারা দিন রাখতে হয় এমন কোনো থার্মোমিটার নেই?   মাখনের বদলে স্যাভলন ক্রিম বিয়ের পরদিন সকালের নাশতায় রুটিতে কামড় দিয়ে মটকু  ভাই বলল, একি!…

Read More

আমি নারী, এই বিশ্ব আমার জন্য যুদ্ধক্ষেত্র/ সুলতানা রিজিয়া

অনেক দিন আগে এমন বাক্য সমৃদ্ধ একটি পোস্টার পড়েছিলাম। পোস্টারের কথাগুলো আজও মনের মাঝে কারণে অকারণে অনুরণন তোলে। নিজের মনের কাছেই উত্তর খুঁজি। চারপাশের জগৎ সংসারে নারীর অবস্থান নিয়ে ভাবি, সত্যিই তো! যুদ্ধ না করে কবে, কোন নারী এই বিশ্বে জীবন যুদ্ধে টিকে থাকতে পেরেছে? কেবল বিশ্বে নয়, আপন ঘরেই তো নারী অহরহ অষ্টপ্রহর যুদ্ধ করেই বেঁচে আছে। সমাজ, সংসার, কর্মক্ষেত্র, রাস্তা ঘাট, এমন কি নারী যে ঘরে তার স্বপ্ন সাজায়, সন্তানদের চোখে কাজল আঁকে, আপন হাতে গোছানো পরিপাটি ঘরদোরে আপনজনদের প্রতীক্ষা করে, সেখানেও কি নারী নিরাপদ? নারী নির্ভার? যাপিতি…

Read More

স্মৃতির ঝাঁপি থেকে ২ – ঝোলাগুড় ও সোয়েটারের কাহিনী/ অনুপা দেওয়ানজী

আমার শাশুড়ি প্যাকেটটা হাতে নিয়ে উলগুলি  কি রঙের তা দেখার জন্যে বের করে দেখেন বেবী পিংক আর ইয়ালো কালারের দুই রকম  উল। আমার মাও ভারি সুন্দর উল বুনতেন। তবে আমার শাশুড়ির বোনা কোন কিছু আমি তখনো দেখিনি। তখনকার দিনে বিভিন্ন ধরনের সেলাই মহিলারা ফ্রেমে  বাঁধিয়ে তা ঘরের দেয়ালে টাঙ্গিয়ে রাখতেন। আমি আমার শাশুড়ির হাতের যে সব সেলাই দেখেছি তা আমার মোটেই ভালো লাগেনি। যেমন  ক্রসস্টিচে সেলাই করা  লক্ষ্মীর একটা ছবিতে খেয়াল করে দেখেছি লক্ষ্মীর এক চোখ বন্ধ। আবার শিশু গোপালের এমব্রয়ডারিতে গোপালের পা দুটি এমনই মোটা ছিলো যে  দেখে মনে…

Read More