হে কবিতাবালা

একজন কবির পাশে আরেকজন কবি একজন শিল্পীর সঙ্গে আরেকজন শিল্পী একটা স্বপ্নে সঙ্গে আরেকটা স্বপ্ন একটা মনের সঙ্গে আরেকটা মন ছাদহীন ঘর তবু জেগে থাকে আশা জাগে প্রান্তর, জাগে ভালোবাসা। রঙিন প্রজাপতি আর বর্ণিল জোনাকি যখন মেলে ধরে ঝলমলে ডানা- যখন শাদা ভেড়ার মতো মেঘ ছোটাছুটি করে আকাশে আকাশে তখন বিন্দু আর কণার মধ্যে কোনো ব্যবধান থাকে না। দীর্ঘায়িত হয় চুম্বনের আয়ুষ্কাল! রাঙাও আকাশ তোমার, সাজাও স্বপ্নের ডালা আমি আছি পদ্যকুমার, হে কবিতাবালা!  

Read More

রাঙা প্রজাপতি 

এ কঠিন মৃত্তিকায় তুমি আকাশ দেখো না এবার আমি তোমাকে দেবো চাঁদের মায়া কোথাও পাও না তুমি সবুজ শ্যামল বৃক্ষরাজি আমি তোমাকে দেবো বৃক্ষের ছায়া। মেঘলা আকাশ তবু আমি সূর্য থেকে নিঃসঙ্কোচে তোমার দু চোখে দেবো এক ঝলক রোদ। ক্রোধ ভাসে সমর্পিত শাসনের শোধ নেওয়ার অস্ফুট আকাঙ্ক্ষা হেসে ওঠে সহজ উদ্যানে। আমি দেবো গন্ধবহ ফুলের ঘ্রাণ ভালোবাসা মায়া আর মমতার দান। মন আর মানসের সব রঙ ছুঁয়ে চিরন্তন ভাবসূত্র এসে ধরা দেয় প্রেমসূত্রে। ঠোঁটের পাপড়ি ছড়িয়ে অন্তহীন আনন্দ আনন দিয়ে এঁকে দেবো যৌবনের গান! দূর সমুদ্রে ভাসমান জাহাজের মতো পাহাড়ের…

Read More